[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

১৯ ঘণ্টা পর শিশু জুনায়েদের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশঃ July 22, 2016 | সম্পাদনাঃ 22nd July 2016
Feature Image

স্বাধীনতা৭১ডটকম

 

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুরে ঢাকা কমার্স কলেজের পেছনে পয়োঃনিষ্কাশন নালায় পড়ার ১৯ ঘণ্টা পর শিশু জুনায়েদ হোসেন সাব্বিরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টা ৫০মিনিটে তার মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। এর আগে সকাল সাড়ে ৭টা থেকে শিশুটিকে উদ্ধারে দ্বিতীয় দফায় অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস।

জুনায়েদ হোসেন সাব্বিরের বাবার নাম আমির হোসেন। তিনি লেগুনা চালক। তাদের গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর। তারা রূপালী হাউজিং ৩ নাম্বার রোডের ৩৩ নাম্বার বাসায় ভাড়া থাকেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার পর সাব্বির নামের শিশুটি নর্দমার পাশ থেকে নিখোঁজ হয়। পরিবার ও স্থানীয়দের ধারণা, সে নর্দমায় পড়ে গেছে।

এরপর খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটের ডুবুরি দল সাব্বিরকে খুঁজতে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। রাত ১০টা থেকে ২টা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান না পেয়ে উদ্ধারকাজ স্থগিত করে ডুবুরিরা।

আজ সকাল পৌনে ৯টার দিকে পুনরায় সাব্বিরকে খুঁজতে উদ্ধারকাজ শুরু করে ৮ সদস্যের ডুবুরিরা। এরপর নর্দমা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

সাব্বির লাশ উদ্ধারের পর সেখানে কান্নায় ভেঙে পড়েন তার স্বজনেরা। এ সময় বাবা আমির হোসেন মূর্ছা যান। তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এর আগে গত ১৩ জুলাই বিকালে প্রতিবেশী এক শিশুর সঙ্গে খেলা করতে গিয়ে রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনালের পাশে নর্দমায় পড়ে যায় শিশু সানজিদা খাতুন (৫)। পরের দিন তার মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা।

স্বাধীনতা৭১ডটকম/এমআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ