[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

সাম্প্রতিক খুনের পেছনে হাত আছে বিদেশি গোয়েন্দাদের: আ.লীগ

প্রকাশঃ May 7, 2016 | সম্পাদনাঃ 7th May 2016

almurder_200_200

দেশের সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডের পেছনে বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার হাত রয়েছে বলে মনে করেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য কাজী জাফর উল্ল্যাহ। শিগগিরই তাদের ষড়যন্ত্র জনগণের সামনে খোলাসা হবে বলেও বিশ্বাস তার।

আর দলের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর মতে, অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশকে, কখনোই জঙ্গিবাদের আখড়া বানানো সম্ভব হবে না।

বাসায় ঢুকে কিংবা রাস্তাঘাটে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর পর গুলি করে মানুষ হত্যার ঘটনা ঘটছে হরহামেশায়। পুলিশের হিসাবেই, ২০১৩ সাল থেকে এখন পর্যন্ত এ ধরনের হামলা হয়েছে ৩৭ টি। যার প্রধান লক্ষ্য মুক্তমনা লেখক, ব্লগার, কথিত নাস্তিক, গীর্জার ফাদার কিংবা মন্দিরের পুরোহিত। বাদ যাননি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকও।

আক্রমণের ধরণ, হত্যার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্বীকারোক্তী, সব মিলিয়ে-আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ধারণা এর পেছনে রয়েছে এক বা একাধিক ইসলামী জঙ্গি সংগঠন।

তবে, ক্ষমতাসীন দলের এ নেতার দাবি, এসব ঘটনার পেছনে কলকাঠি নাড়ছে বিদেশি কিছু গোয়েন্দা সংস্থা। শিগগিরই তা জনগণের সামনে উন্মোচনের আশা তার।

কাজী জাফর উল্যাহ বলেন, এসব হত্যাকাণ্ডের পেছনে রয়েছে, সুদূর প্রসারী রাজনৈতিক উদ্দেশ্য। তাই এতে প্রমাণ হয় না, দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ।

দলটির আরেক নেতার মতে, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের শিকার বাংলাদেশ। যার মূল উৎপাটনে নিরলসভাবে কাজ করছে সরকার।

ক্ষমতাসীনদলের এ দু’নেতাই বিশ্বাস করেন, বাংলাদেশকে জোর করে জঙ্গীবাদ আর সন্ত্রাসের দেশ বানানোর ষড়যন্ত্রে সফল হবে না কেউই।

এই বিভাগের আরো সংবাদ