[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

সাতকানিয়ায় গুলি-সহিংসতা, ছাত্রলীগ কর্মী অস্ত্রসহ আটক

প্রকাশঃ June 4, 2016 | সম্পাদনাঃ 4th June 2016

bg20160604115440

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলাকালে পরস্পর গুলি বিনিময়, সংঘর্ষসহ বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনা চলছে।  সহিংসতার কারণে একটি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়েছে।  বিজিবি একটি কেন্দ্র থেকে অস্ত্রসহ এমরান আহমেদ নামে বহিরাগত এক ছাত্রলীগ কর্মীকে আটক করেছে।

শনিবার (০৪ জুন) সাতকানিয়াসহ চট্টগ্রামের ৫ উপজেলায় ৪১ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে।

চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (সাতকানিয়া সার্কেল) একেএম এমরান ভূঁইয়া স্বাধীনতা৭১কে বলেন, দুপক্ষে গোলাগুলি হয়েছে।  এজন্য বাজালিয়া ইউনিয়নের বোর্ড অফিস কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়েছে।  আরও কয়েকটি কেন্দ্রে উত্তেজনা চলছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে ১৩ নম্বর বাজালিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর বোর্ড অফিস কেন্দ্র থেকে দেশিয় তৈরি একটি এলজিসহ এমরানকে আটক করে বিজিবি।  আটকের সময় এমরান নিজেকে ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে পরিচয় দিয়েছে।  নগরীর আতুরার ডিপো এলাকায় তার বাসা বলে জানিয়েছে।

বিজিবি এমরানকে আটকের পর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমানের হাতে তুলে দেয়।  আনিসুর রহমান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, এমরানকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজির করা হবে।  সেখানে তার বিচার হবে।

এদিকে সকাল ১১টা থেকে বাজালিয়া ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের কয়েকটি কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে তিন দফা মারামারি হয়েছে।  প্রতিবারই পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

একই ওয়ার্ডের প্রসন্ন গুহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে থেমে থেমে গুলি বিনিময় চলছে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ