[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

‘সাগর চুরি’র কথা স্বীকার অর্থমন্ত্রীর

প্রকাশঃ June 7, 2016 | সম্পাদনাঃ 7th June 2016

ঢাকা: দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতে লুটপাটকে পুকুর চুরি নয়, সাগর চুরি বলে স্বীকার করেছেন অর্থমন্ত্রী আবদুল মাল মুহিত।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে স্বতন্ত্র সদস্য রুস্তম আলী ফরাজীর এক বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রী আর্থিক খাতের দুর্নীতির কথা এভাবেই স্বীকার করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন,  এটা ঠিক যে ব্যাংক ও আর্থিক খাতে অনেক দোষ-ত্রুটি হয়েছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে লুটপাট হয়েছে। ফরাজী সাহেবের সাথে আমিও একমত, সেখানে পুকুর চুরি নয়, সাগর চুরি হয়েছে।”

সংসদে ২০১৫-১৬ সালের সম্পূরক বাজেটের ওপর বিরোধী দল ও স্বতন্ত্র সদস্যদের দেওয়া ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে অর্থমন্ত্রী ব্যাংক খাতের জন্য ২৩৮ কোটি দুই লাখ ৪৪ হাজার টাকা বেশি বরাদ্দের পক্ষে বলেন।

এর বিরোধিতা করে  রুস্তম আলী ফরাজী বলেন,  “ব্যাংক খাত থেকে টাকা চুরি হয়ে গেছে। সব ব্যাংকের একই অবস্থা। বাংলাদেশ ব্যাংকে যখন পচন ধরেছে… ৮০০ কোটি টাকা কর্মকর্তাদের যোগসাজশে চুরি হলো। সব চুরির সাথে ওই ব্যাংকের কর্মকর্তারা জড়িত।”

ফরাজী বলেন,  “পৌনে তিন লাখ কোটি টাকা পাচার হয়েছে। ৩০ হাজার কোটি টাকা চুরি হয়েছে। এগুলোকে পুকুর চুরি না বলে সাগর চুরি বলা যায়।”

মঙ্গলবারের অধিবেশনে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম ওমর, সেলিম উদ্দিন ও ফখরুল ইমাম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ