[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

কলেজ শিক্ষক রিপন চক্রবর্তী আশঙ্কামুক্ত, চিকিৎসক।

প্রকাশঃ June 16, 2016 | সম্পাদনাঃ 16th June 2016

মাদারীপুর: মাদারীপুরে দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত কলেজ শিক্ষক রিপন চক্রবর্তী (৪০) এখন আশঙ্কামুক্ত। বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে অপারেশন থিয়েটার থেকে বের হয়ে একথা জানিয়েছেন হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. রুবেল।

অধ্যাপক রুবেল জানান, মাদারীপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর বুধবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে রিপন চক্রবর্তীতে শেবাচিম হাসপাতালে আনা হয়। অপারেশন থিয়েটারে প্রায় দেড় ঘণ্টা অস্ত্রোপচার করা হয়। অধ্যাপক রিপনের মাথা, ঘাড় ও হাত মিলিয়ে ধারালো অস্ত্রের ৭টি আঘাত রয়েছে। তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ ঘটেছে। এখন তিনি অনেকটা আশঙ্কামুক্ত।

দুর্বৃত্তের হামলায় আহত রিপন চক্রবর্তী বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বিল্ব গ্রামের বাসিন্দা রবীন্দ্র নাথ চক্রবর্তীর ছেলে। তিনি মাদারীপুরে সরকারি নাজিম উদ্দিন কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক।

মাদারীপুর সদর মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল মোর্শেদ জানান, ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে। গুপ্তহত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালানো হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় আটক ফাইজুল্লাহ ফাহিম চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাসিন্দা বলে জানান ওসি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ