[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

ছাত্র রাজনীতিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই।

প্রকাশঃ June 12, 2016 | সম্পাদনাঃ 12th June 2016

Kader1465723600

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দেওয়ার অনুরোধ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

 

তিনি বলেছেন, ছাত্র রাজনীতিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। তাই ছাত্র রাজনীতি চাঙা করতে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হওয়া উচিত।

 

রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন ছাত্রলীগ আয়োজিত বর্ধিত সভা ও কর্মশালার উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

সংগঠনের সভাপতি মো. সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের প্রাক্তন সভাপতি আব্দুল মান্নান এমপি, এনামুল হক শামীম।

 

মন্ত্রী বলেন, বিগত ২৪ বছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হয় না। যদি এ নির্বাচন হতো তাহলে এই সময়ের মধ্যে ৪৮ জন নেতা তৈরি হত। ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হওয়ায় সে পথ বন্ধ হয়ে গেছে। এ দরজাটা খুলে দেওয়া উচিত। ছাত্র নেতা থেকে জাতীয় নেতা সৃষ্টি হওয়ার জন্য এটা আবার চালু হওয়া উচিত।

 

প্রাক্তন এ ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ছাত্র সংসদ নির্বাচন করতে গেলে একজন ছাত্র নেতা নিজেকে নিয়ে ভাবতে পারে। যে তাকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছাতে হবে, তাই ভালো হতে হবে, নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে হবে। তার বক্তব্যও হবে পরিশীলিত, যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে গ্রহণযোগ্য। পড়াশোনা করে নিজেকে সমৃদ্ধ করেও গড়ে তোলে এবং নিজের মধ্যে যেন কোন খারাপ আচরণের প্রবণতা না দেখা যায় সেই চেষ্টা করে।

 

তিনি আরো বলেন, মাঝেমধ্যে ক্যাম্পাসগুলোতে যে বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি হয় সেটি এড়াতেও ছাত্র সংসদ নির্বাচন আবশ্যক। তখন একটা সুস্থ প্রতিযোগিতা শুরু হয়, অসুস্থ প্রতিযোগিতার পথ বন্ধ হয়ে যায়।

 

ছাত্র নেতাদের বক্তৃতায় ছাত্র সমস্যা নিয়ে কথা বলার পরামর্শ দিয়ে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বক্তৃতায় ছাত্র নেতাদের জাতীয় রাজনীতি নিয়ে কথা বলার আগে অবশ্যই ছাত্র সমস্যা ও শিক্ষা সমস্যা নিয়ে কথা বলতে হবে। তাহলেই সাধারণ ছাত্র ছাত্রীদের কাছে নিজেকে গ্রহণযোগ্যভাবে উপস্থাপন করা যাবে।

 

এ সময় মন্ত্রী সম্প্রতি খ্রিষ্টান ও পুরোহিত হত্যাকাণ্ডসহ যাবতীয় হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে বলেন, এসব হত্যাকাণ্ডের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বিদেশি মিত্রদের সঙ্গে সরকারের সম্পর্ক নষ্ট করা। বাংলাদেশকে একটি সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করা। এ সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদ আমাদের প্রধান সমস্যা, এটির বিরুদ্ধে কাজ করতে হবে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ