[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

মেহেরপুরের পৌর মেয়রকে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি

প্রকাশঃ June 16, 2016 | সম্পাদনাঃ 16th June 2016

Meherpur-Pauro-Meyer-Threding-Photo-02

ছবি: হুমকিদাতার পাঠানো কাফনের কাপড় ও চিঠি (সংগৃহীত ছবি)

(স্বাধীনতা৭১ডটকম) মেহেরপুর পৌর মেয়র মোতাছিম বিল্লাহ মতুকে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে নির্বাচিত এ স্বতন্ত্র পৌর মেয়রের কাছে বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) দুপুর ১২টার দিকে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধমে একটি পার্সেলে কাফনের কাপড় ও একটি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া চিঠি আসে।

রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকার ঝিগাতলা থেকে রনি নামের এক ব্যক্তি এ পার্সেলটি পাঠিয়েছেন। সেখানে প্রেরকের ১২ ডিজিটির গ্রামীণফোনের একটি মোবাইল নম্বর দেওয়া আছে। নম্বরটি হলো- ০১৭১২৪৪৭৯৮৯২।

খামের ভেতর একটি সাদা কাফন ও একটি বাঁশকাগজের খামে চিরকুট ছিল। পৌর মেয়র মোতাছিম বিল্লাহ মতু বলেন, ‘দুপুরে পৌরসভায় অফিস করার সময় সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের পিয়ন একটি প্যাকেট দিয়ে যায়। প্যাকেটটি খুলে একটি সাদা কাফন ও আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া একটি চিঠি পাই। চিঠিটি ঢাকার ধানমণ্ডির ঝিগাতলা থেকে রনি নামের এক ব্যক্তি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে রোজার ঈদের দিন ঈদগাহে আমাকে তারা মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনার পর আমি নিরাপত্তা চেয়ে মেহেরপুর সদর থানায় একটি সাধারণ জিডির প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

মেয়রকে হত্যার হুমকির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী।

চিরকুটটি হুবহু তুলে ধরা হলো

‘মতু তোমায় সালাম/হে মেহেরপুরের মেয়র আগামী রোজার ঈদ তোমার জীবনের শেষ ঈদ। ঐদিন ঈদগাতেই তোমাকে মেরে ফেলা হবে। আর ঐ দিনই তোমার জানাজা হবে ঐ মাঠে। উপরে গিয়ে মেয়র গিরি করবা। কোন নিরাপত্তা পুলিশ দিতে পারবে না। সেই ব্যবস্থা আমরা করব। এমপিকে টাকা দিয়েছো তা তোমার কোন কাজে লাগবে না। তোমার কাউন্সিলররাও আমাদের সাথে জড়িত। তুমি কোথায় যাবা, কাফন পাঠিয়ে দিলাম। সালাম হে মেয়র তোমায়। আমাদের কার্যক্রম প্রায় শেষ তোমার লোকজনই তোমাকে ঈদ গায়ে মারবে। শেষ ইবাদত করে নাও এসপি পুলিশ তোমার নিরাপত্তা দিতে পারবে না। তুমি বাড়িতেও পুলিশ বসাও। তো কি হবে। মৃত্যু তোমার আসবে। তো দেখতে থাকো। সাংবাদিক সম্মেলন করে বদনাম দাও। তো অপেক্ষায় তুমি থাকো। আমরাও থাকি। দেখা হবে ঐ দিন। ঈদগায়ে।’

এই বিভাগের আরো সংবাদ