[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

ভাসমান মানুষ যৌন রোগের ঝুঁকিতে

প্রকাশঃ April 28, 2016 | সম্পাদনাঃ 28th April 2016

link-up-bg20160428170534

 

ঢাকা: রাজধানীতেই প্রায় ২০ হাজার মানুষ রেলস্টেশন, বাস-লঞ্চ টার্মিনালসহ ফুটপাতে রাতযাপন করে থাকেন। তাদের অনেকেই এসটিআই, এইডস ছাড়াও অন্যান্য যৌন রোগে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টার ইন এ ‘যুব সম্প্রদায়ের যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য এবং অধিকার উন্নয়ন’ শীর্ষক সেমিনার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বেসরকারি সংস্থা লিঙ্ক আপ বাংলাদেশ, মেরি স্টোপস বাংলাদেশ ও পপুলেশন কাউন্সিল সেমিনারের আয়োজন করে।

এতে বক্তারা জানান, যারা খোলা আকাশের নিচে রাতে ঘুমান তাদের যৌন মিলনের সময় কনডমসহ অন্যান্য পদ্ধতি ব্যবহারের হার কম। এসব পদ্ধতির সহজলভ্যতা, আরোগ্য ও শৈল্য চিকিৎসা সেবার প্রাপ্যতারও অভাব রয়েছে। গর্ভপূর্ববর্তী ও পরবর্তী এবং গর্ভকালীন সেবার নিশ্চিয়তা তেমন নেই।

যে কারণে খোলা আকাশের নিচে বসবাসকারীদের মধ্যে বিভিন্ন যৌন রোগ সংক্রমণের আশঙ্কা বেশি জানিয়ে বক্তারা বলেন, তাদের এসব বিষয়ে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান জরুরি।

এছাড়াও ভাসমান মানুষ অন্যান্য নেতিবাচক স্বাস্থ্য এবং সামাজিক অবক্ষয়ের মধ্যে রয়েছেন। বহুগামিতা, অনিয়মিত কনডম ব্যবহার, মাদকদ্রব্যের ব্যবহার, নিপীড়ন, ন্যূনতম চিকিৎসা সেবা না পাওয়া এবং তাদের এইচআইভি জ্ঞানের পরিধি কম বলে জানানো হয়।

টার্মিনাল ও ফুটপাতে বসবাসকারীদের অনেকেই যৌন ও শারীরিক নির্যাতনেরও শিকার। তাদের মধ্যে অনেকে নেশাগ্রস্ত, এইচআইভি-এইডসহ জটিল রোগ বিষয়ে সচেতন নয়। তারা অনিরাপদ যৌন মিলন, এমনকি রোগের চিকিৎসার বিষয়েও অসচেতন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ওয়াহিদ হোসেন। এতে বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের প্রতিনিধি ইলা ডি ভোগ।

পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের এমসিএইচ সার্ভিসের ডেপুটি ডিরেক্টর ড. ফাহমিদা সুলতানার সভাপতিত্বে পপুলেশন কাউন্সিলের বাংলাদেশ অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. ওবায়দুর রব, মেরি স্টোপস বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাশরুরুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

এছাড়া সেমিনারে আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি, এনজিও ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

নেদারল্যান্ডস সরকার বাংলাদেশসহ পাঁচটি দেশে ইন্টারন্যাশনাল এইচআইভি/এইডস অ্যালায়েন্স ইউকের মাধ্যমে লিঙ্ক আপ প্রকল্পে সহায়তা প্রদান করে আসছে।

বাংলাদেশে প্রকল্পটি লিঙ্ক আপ বাংলাদেশ, মেরি স্টোপস বাংলাদেশ এবং পপুলেশন কাউন্সিল গত তিন বছর ধরে পরিচালনা করে আসছে।

প্রকল্পটির মাধ্যমে ১০ থেকে ২৪ বছরের ঝুঁকিপূর্ণ যৌনকর্মী, সমকামী পুরুষ, হিজড়া, বিভিন্ন শহরের মধ্যে ভাসমান যুব সম্প্রদায়ের যৌন স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করে। স্থানীয় বেসরকারি বেশ কিছু সংস্থাসহ দেশের ১৭ জেলার ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী নিয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ