[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

প্রস্তাবিত বাজেট ডিজিটাল দেশ গড়ার প্রতিবন্ধক’

প্রকাশঃ June 8, 2016 | সম্পাদনাঃ 8th June 2016

ঢাকা: প্রস্তাবিত শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোশিয়েশন আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেছেন, ‘মুঠোফোনের ভোক্তা হিসেবে প্রস্তাবিত বাজেট আমাদেরকে হতাশাগ্রস্ত করেছে। বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে অঙ্গীকার, তা এই বাজেট প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে।’

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রতিবন্ধকতার বাজেট প্রত্যাহারের দাবিতে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে নিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছেন তা এই বাজেটের মাধ্যমে ভূলুণ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বর্তমানে যে কর ধার্য আছে তাই অতিরঞ্জিত, বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সংগঠন তা কমানোর জন্য দাবি জানিয়ে আসছে। তা না কমিয়ে উল্টো আরও সম্পূরক শুল্ক ২% বাড়িয়ে দেয়া হলো। যার ফলে মুঠোফোন গ্রাহকদের অতিরিক্ত ৬.৬৭ টাকা বেশি দিতে হবে।’

বক্তারা বলেন, ‘সম্পূরক শুল্ক বাড়িয়ে দেয়ায় কলরেট বৃদ্ধি পাবে ফলে গ্রাহকরা ইন্টারনেটে বিভিন্ন ডাটা (ভাইবার, ইমো, হোয়াটস অ্যাপ, ফেসবুক) ব্যবহার করে কথা বলবে। এতে খরচ পড়বে প্রতি মিনিটে ০.৮ টাকা। এই কোম্পানিগুলো সরকারের নিবন্ধিত না হওয়ায় এই অর্থ বিদেশে চলে যাবে বিনা শুল্কে। এতে করে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাবে।’

বক্তারা আরও বলেন, ‘ভোক্তাদের কথা বিবেচনা না করে, সেবার মান না বাড়িয়ে এ ধরনের শুল্ক বৃদ্ধির কোনো যৌক্তিকতা আছে বলে মনে করি না। ভোক্তাদের পক্ষ থেকে প্রস্তাবিত এই শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। এতে করে এ খাতের ব্যবহার আরও বৃদ্ধি পাবে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অগ্রগতি সাধিত হবে।’

মানববন্ধনে কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা রাজেকুজ্জামান রতন, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলনের সভাপতি হারুনুর রশিদ, বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দীন আহমেদ, মহাসচিব, অ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিক প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ