[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

নিরাপত্তা দিতে গিয়ে মন্ত্রীর মার খেলেন এসআই

প্রকাশঃ April 4, 2016 | সম্পাদনাঃ 4th April 2016

Minister-Joy20160402213555

নিরাপত্তা দিতে গিয়ে যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের মারধরের শিকার হলেন সাভারের আশুলিয়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মলয় কুমার সাহা।

আশুলিয়ার নবীনগর এলাকায় শনিবার (২ এপ্রিল) সকালে এ ঘটনা ঘটলেও জানাজানি হয়েছে বিকেলে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং ৬৬) করেছেন এস আই মলয় কুমার।

জিডির বর্ণনায়  জানা যায়, শনিবার ভোরে সিরাজগঞ্জ থেকে উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় তার ব্যক্তিগত গাড়ি ( ঢাকা মেট্রো-ঘ-১৫-১০৮৩) নিয়ে ঢাকায় ‍আসছিলেন। পথে আশুলিয়ার নবীনগর এলাকায় পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের ওপর উঠে যায় উপমন্ত্রীর গাড়ি। এসময় সেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসআই মলয় কুমার এগিয়ে গেলে তাকে উত্তেজিত হয়ে অকথ্য ভাষা গালিগালাজ করতে থাকেন উপমন্ত্রী। একপর্যায়ে এসআইকে দেখে নেবেন বলে শাসিয়ে দেন তিনি।

এসআইকে উপমন্ত্রী বলেন, ‘তুই কেন আমাকে নিরাপত্তা দিতে আসছিস? আমি কি তোর কাছে নিরাপত্তা চাইছি। তুই কী আমার নিরাপত্তা দিবি? তুই কয়টা গুলি করতে পারিস, আর আমি কয়টা গুলি করতে পারি, তুই দেখবি?’

তারপরও এসআই তার দায়িত্ব পালন করতে দেওয়ার অনুরোধ করলে উপমন্ত্রী উত্তেজিত হয়ে ওই পুলিশ কর্মকর্তার ‘ক্ষতি’ করে ফেলবেন এবং ‘চাকরি খেয়ে ফেলবেন’ বলে শাসান।

এরপর আরিফ খান জয় দৌঁড়ে দূরপাল্লার একটি বাসে উঠে পড়েন। কিছু দূর এগোনোর পর উপমন্ত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে এসআই ছুটে এসে বাসে উঠতে গেলে তাকে মারধর করে ও লাথি মেরে ফেলে দেন তিনি। পরে উপমন্ত্রী গাবতলী পৌঁছে বাস থেকে নেমে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে মিরপুর মাজার রোডের দিকে চলে যান।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে এসআই মলয় সাহার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বিষয়টি নিয়ে ‘ঘাঁটাঘাঁটি’ না করার জন্য অনুরোধ জানান।

এ ব্যাপারে আলাপ করলে আশুলিয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহসীনুল কাদির বিষয়টি প্রথমে অস্বীকার করেন। পরে থানায় জিডি হয়েছে কিনা জানতে চাইলে প্রশ্ন এড়িয়ে যান।

এই বিভাগের আরো সংবাদ