[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

নিরাপত্তা জোরদার করেছে সুইফট

প্রকাশঃ May 25, 2016 | সম্পাদনাঃ 25th May 2016
Feature Imageআর্ন্তজাতিক ডেস্ক: বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির পর নিজেদের নিরাপত্তা জোরদারে পাঁচ দফা নিরাপত্তা পরিকল্পনা নিয়েছে আর্থিক লেনদেনের বার্তা আদান-প্রদানকারী আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান সুইফট। গত সপ্তাহের শেষে ব্রাসেলসে এক কনফারেন্সে সুইফটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গটফ্রায়েড লাইব্র্যান্ড পাঁচ দফা পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান। খবর রয়টার্সের। সুইফটের সদর দপ্তর বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে।

গটফ্রায়েড লাইব্র্যান্ড বলেন, এ ধরনের অপরাধ সুইফটের ওপর গ্রাহকদের তথা ব্যাংক খাতের আস্থায় ফাটল সৃষ্টি করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনা ব্যাংক খাতের জন্য এক চরম মুহূর্ত। বাংলাদেশ ব্যাংকের জালিয়াতি কোনো ভিন্ন ঘটনা না, এখানে একটা বড় লেনদেন হয়েছে। অন্যান্য লেনদেনের মতো সুইফটের বার্তার মাধ্যমে অর্থ স্থানান্তরের আদেশ দিয়ে বিপুল অর্থ চুরির ঘটনা ঘটানো হয়। যে ঘটনা বিশ্বজুড়ে ব্যাংক খাতে নাড়া দিয়েছে।

তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনায় আবারও নিজেদের নির্দোষ দাবি করে সুইফটের প্রধান নির্বাহী বলেন, ব্যবহারকারীর ব্যর্থতার কারণেই এ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তিনি আরও বলেন, সুইফট শক্তিশালী কোনো নিয়ন্ত্রক সংস্থা বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী না।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সরকার গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন সম্প্রতি সাংবাদিকদের বলেন, অর্থ চুরির ঘটনার জন্য প্রাথমিকভাবে সুইফট দায়ী। সুইফটের কর্তব্য সুরক্ষিত অবস্থায় সিস্টেম দেওয়া। এ ছাড়া মাঝপথে যেন অরক্ষিত অবস্থায় না যায়, সেটা দেখাও সুইফটের দায়িত্ব।

এই বিভাগের আরো সংবাদ