[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

তারেকের পক্ষে অবশিষ্ট জেরার জন্য আগামী ১৯ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

প্রকাশঃ May 12, 2016 | সম্পাদনাঃ 12th May 2016
Feature Image(স্বাধীনতা৭১ডটকম)

ঢাকা: দুদকের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষে মামলার বাদী দুদকের উপপরিচালক হারুন অর রশিদকে অবশিষ্ট জেরার জন্য আগামী ১৯ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশি বাজারস্থ আলিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন অস্থায়ী আদালতে ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদার আসামিপক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে জেরার জন্য এদিন ঠিক করেন।

আজ তারেক রহমানের পক্ষে হারুন অর রশিদকে জেরার জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন তারেকের আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামের অনুপস্থিতির কথা জানিয়ে জেরা পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন আরেক আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া ।

শুনানি শেষে বিচারক জেরার জন্য ১৯ জুন ধার্য করেছেন। এর আগে গত ৫ মে ও ২৭ এপ্রিল তারেকের পক্ষে বাদীকে জেরা করেন তার আইনজীবীরা।গত ২৭ এপ্রিল এ মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষে জেরা শেষ করেন প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল আব্দুর রেজ্জাক খান। খালেদা জিয়ার পক্ষে জেরা শেষে ওই দিনই তারেকের পক্ষে জেরা শুরু হয়।

এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে জিয়া অরফানেজ মামলাটি দায়ের করে দুদক। ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় এই মামলাটি দায়ের করা হয়।

২০০৯ সালের ৫ আগস্ট দুদক আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

অভিযোগপত্রে খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমান, প্রাক্তন এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রাক্তন সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে আসামি করা হয়।

তারেক রহমান সরকারের নির্বাহী আদেশে দেশের বাইরে আছেন। মাগুরার প্রাক্তন এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ জামিনে আছেন। ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান মামলার শুরু হতেই পলাতক।

এই বিভাগের আরো সংবাদ