[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

জঙ্গি আকিফুজ্জামান (পিতা সাইফুজ্জামান) পূর্ব পাকিস্তানের সাবেক গভর্নরের নাতি।

প্রকাশঃ July 28, 2016 | সম্পাদনাঃ 28th July 2016

 akif

ঢাকা : রাজধানীর কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানা জাহাজ বাড়িতে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত ৯ জঙ্গিদের মধ্যে আকিফুজ্জামান (পিতা সাইফুজ্জামান) পূর্ব পাকিস্তানের সাবেক গভর্নর মোনায়েম খানের নাতি ছিলেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান। এছাড়া তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়েরও ছাত্র ছিলেন।

সোমবার রাতে কল্যাণপুরের ৫ নম্বর সড়কে তাজ মঞ্জিল নামের ছয় তলা একটি ভবনে অভিযানে গিয়ে হামলার মুখে পড়েন পুলিশ সদস্যরা। পরে মঙ্গলবার ভোরে সোয়াটের বিশেষ অভিযানে নিহত হন সন্দেহভাজন নয় জঙ্গি। তাদের মধ্যে সাতজনের বুধবার সন্ধ্যায় পরিচয় প্রকাশ করা হয় পুলিশের পক্ষ থেকে।

তারা হলেন-পটুয়াখালীর আবু হাকিম নাইম (২৪)। বাবা নুরুল ইসলাম। দিনাজপুরের আব্দুল্লাহ (২৩)। বাবা মো. সোহরাব আলী। সাতক্ষীরার মতিউর রহমান। বাবা নাসির উদ্দিন সরদার। নোয়াখালীর জোবায়ের হোসেন (২২)। বাবা আবদুল কাইয়ুম। ঢাকার ধানমণ্ডির তাজ-উল-হক রাশিক (২৪)। বাবা রবিউল হক। ঢাকার বসুন্ধরার সেজাদ রউফ অর্ক (২৪) । বাবা তৌহিদ রউফ। ঢাকার গুলশানের আকিফুজ্জামান খান (২৪)। বাবা সাইফুজ্জামান খান।

এদের মধ্যে সেজাদ রউফ যুক্তরাষ্ট্রের পাসপোর্টধারী ছিলেন। গত ফেব্রুয়ারি থেকে নিখোঁজ এই যুবক গুলশানে হামলাকারী নিবরাস ইসলামের বন্ধু ছিলেন।

এরপর বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আরও এক জঙ্গির পরিচয় প্রকাশ করা হয়। রায়হান কবির ওরফে তারেক নামের ওই তরুণ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ঢাকা অঞ্চলের সমন্বয়েকের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

এছাড়া গুলশান হামলায় অংশ নেয়া জঙ্গিদের গাইবান্ধার চরে প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন তিনি। মনিরুল এ সব তথ্য জানিয়ে আরও বলেন, রায়হান কবিরকে আমরা তারেক নামে চিনতাম।

(স্বাধীনতা৭১ডটকম/এআর)

এই বিভাগের আরো সংবাদ