[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

খালেদার আত্মপক্ষ সমর্থন আবারও পেছাল

প্রকাশঃ May 5, 2016 | সম্পাদনাঃ 5th May 2016

Khaleda_Zia

ঢাকা: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আগামী ১৯ মে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশিবাজারস্থ কারা অধিদফতরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদার আসামিপক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য ওই দিন ধার্য করেন।

আজ খালেদা জিয়ার পক্ষে আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে তিনি আদালতে হাজির না হওয়ায় তার পক্ষে শারীরিক অসুস্থতা ও মামলা স্থগিতে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়েছে উল্লেখ করে আত্মপক্ষ শুনানি পেছানোর জন্য দু’টি সময়ের আবেদন করেন তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া। শুনানি শেষে আদালত আবেদন মঞ্জুর করেন ।  দুদকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল।

এ নিয়ে চতুর্থ দফায় পেছাল আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানি। এর আগে গত ৭,১৭ ও ২৫ এপ্রিল এবং  ৫ মে চার দফায় খালেদা জিয়ার পক্ষে সময়ের আবেদন করা হয়।

খালেদার আইনজীবীরা মামলাটির বিচারিক কার্যক্রম স্থগিত রাখতে হাইকোর্টে আবেদন জানালেও সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন ছুটির পরে আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন উচ্চ আদালত।

গত ১৭ এপ্রিল খালেদার পক্ষে তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর রশিদের কেস ডায়েরি সিডি চেয়ে এবং তদন্তকারী কর্মকর্তাকে পুনরায় রিকল করে জেরার আবেদন করেছিলেন তার আইনজীবীরা। শুনানি শেষে আবেদন দু’টি খারিজ করে দেন আদালত। এরপর খালেদার আইনজীবীরা খারিজের এ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করবেন বলে জানিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন পেছানোর আবেদন জানান।

এই মামলায় অপর দুই আসামি জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থন করে আদালতে লিখিত বক্তব্য জমা দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ ওই আদালতের তৎকালীন বিচারক বাসুদেব রায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

২০১১ সালের ৮ আগস্ট জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলাটি দায়ের করে দুদক। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি আদালতে চার্জশিট দাখিল করে দুদক। মামলাটিতে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হয়।

মামলাটিতে বিএনপি নেতা সচিব হারিছ চৌধুরী এবং তার তৎকালীন একান্ত সচিব বর্তমানে বিআইডব্লিউটিএ এর নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের প্রাক্তন মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান আসামি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ