[bangla_day], [english_date], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]

ইকুয়েডরে ভূমিকম্প : আমাদের প্রস্তুতি কতটা

প্রকাশঃ April 21, 2016 | সম্পাদনাঃ 24th April 2016

upsommpadokio-300x150

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডরে ভয়াবহ ভূমিকম্পে যে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে সেটি তারা কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে আমাদের বিশ্বাস। শনিবার রাতে আঘাত হানা ওই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮। গণমাধ্যমের খবরে বিগত কয়েক দশকের মধ্যে এই ভূমিকম্পকে সবচেয়ে ভয়াবহ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। ভূমিকম্পে কম করে হলেও  ২শ ৭২জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরো অনেকে। জাপানেও কয়েকদিন আগের দুই দফার ভূমিকম্পে ব্যাপক হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশেও এ মাসেই ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তবে মাত্রা কম থাকায় তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।  ভূমিকম্পের আঘাত আমাদেরকে সতর্ক বার্তাই দিয়ে যাচ্ছে। ভূতাত্ত্বিকদের মতে ভূমিকম্প ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইরান এবং বাংলাদেশ। সেদিক থেকে আমাদের প্রস্তুতি কতোটা এ নিয়ে জোরেশোরে ভাবতে হবে। নিতে হবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ।

ভূমিকম্প এমন একটি দুর্যোগ যার পূর্বাভাস এখনো বিজ্ঞানীরা দিতে পারছে না। তবে নানা গবেষণায় ভূমিকম্পপ্রবণ অঞ্চল হিসেবে বাংলাদেশের কথা উঠে এসেছে বার বার। বিশেষজ্ঞের মতে, বাংলাদেশ এখন কোনোমতেই ঝুঁকিমুক্ত নয়। কারণ গত ৮০-৮১ বছরে কোনো বড় ভূমিকম্প হয়নি। এছাড়া ইন্ডিয়ান প্লেট যাচ্ছে উত্তর দিকে, আর উত্তর দিকে আমাদের ইউরেশিয়ান প্লেট। দুটি প্লেট ধাক্কা দিচ্ছে, আর তাতে করে এর বাউন্ডারিতে এনার্জি স্টোর হচ্ছে। বেশ কিছুদিন পরপর প্রেসারটি রিলিজ করার জন্য জায়গাটি নড়ে যায়, আর তখন ভূমিকম্প হয়।

ভূমিকম্পপ্রবণ অঞ্চল হওয়ায় বাংলাদেশ রয়েছে মারাত্মক ঝুঁকিতে। বিল্ডিং কোড মেনে না চলা, বন উজাড়, পাহাড় কেটে ধ্বংস করাসহ নানা উপায়ে আমরা যেন ভূমিকম্প নামক মহাবিপদ ডেকে আনছি। এক পরিসংখ্যানে জানা গেছে, সারা দেশে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের সংখ্যা লক্ষাধিক। একই সাথে পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে ভূমিকম্পের কারণে সৃষ্ট ভূকম্পনেও বাংলাদেশের ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে বলেও বিশ্লেষকরা বলছেন। এ ক্ষেত্রে নতুন ভবন নির্মাণে সরকারি তদারকি আরো বাড়ানো প্রয়োজন। বার বার ভূমিকম্প এ কথাই যেন স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে যে,  দুর্যোগ মোকাবেলায় আমরা আসলে কতোটা প্রস্তুত। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় বলা হয়েছে সাড়ে ৭ মাত্রার ভূমিকম্পে বাংলাদেশে প্রায় ২ থেকে ৩ লাখ মানুষের প্রাণহানি ঘটবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ